‘অ্যাডাল্ট ওয়েবসাইটে’ ভিডিও দিয়ে বিপুল অর্থ পাচ্ছেন তারকারা!

0
3

বাংলারজয় বিনোদন ডেস্ক:

কেউ এক দিনে ১০ লাখ ডলার, কেউ মাসে ৮০ লাখ ডলার, আবার কেউ ছয় ঘণ্টাতেই কামিয়ে নিচ্ছেন ১০ লাখ ডলার! হলিউডের বেশ কয়েকজন তারকা এমনই অবিশ্বাস্য পরিমাণ আয় করছেন একটি ওয়েবসাইট থেকে। ভাবছেন, মেইনস্ট্রিমের কাজ না করেও এতো টাকা আয় কীভাবে সম্ভব? তাহলে জানুন…

প্রায় পাঁচ বছর ধরে ওয়েবসাইটটি পরিচিতি পেয়েছে। সঙ্গত কারণে এটার নাম প্রকাশ করা হয় না। জানা যায়, এখানে মূলত অ্যাডাল্ট কনটেন্ট আপলোড করেন হলিউডের তারকারা। আর সেসব কনটেন্টের জন্য প্রচুর অর্থ পান তারা। সাধারণত ইনস্টাগ্রাম বা ফেসবুকের মতো সোশ্যাল সাইটে নগ্ন ছবি বা ভিডিও শেয়ার করা যায় না। করলেও সেটা বাতিল করে দেয় সাইট কর্তৃপক্ষ। তবে নতুন এই ওয়েবসাইট সেগুলো সহজেই আপলোড করা যায়। তারকারা মনে করেন, ভক্তদের সঙ্গে ব্যক্তিগত স্তরে যোগাযোগ তৈরিতে এটা অধিক কার্যকর।

বিভিন্ন পর্ন সাইটে তারকাদের ভুয়া ভিডিও দেখা যায়। তবে এই ওয়েবসাইটে সবই আসল। কেননা তারকারা নিজেরাই এখানে পোস্ট করেন। ওয়েবসাইটটির ভাষায় যারা এখানে ভিডিও পোস্ট করেন, তারা কনটেন্ট ক্রিয়েটর। যার কনটেন্ট যত বেশি মানুষ দেখবে, তিনি তত বেশি অর্থ পাবেন।

প্রশ্ন আসতে পারে, এসব ভিডিও অন্যদিকে ছড়িয়ে যায় না কেন? জানা যায়, এই ওয়েবসাইটের নিরাপত্তা ব্যবস্থা অত্যন্ত কঠোর। এখানে নির্দিষ্ট সাবস্ক্রিপশন ফি দিয়ে প্রবেশ করতে হয়। এবং কোনো কনটেন্ট ডাউনলোড করার কোনো ব্যবস্থা নেই। যার ফলে তারকা এবং ভক্ত সবারই বিশ্বাসযোগ্য হয়ে উঠেছে সাইটটি। একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের তথ্য মতে, ২০১৬ সালে ওয়েবসাইটটি প্রকাশ্যে আসে। এখন অব্দি এখানে ৩ কোটির বেশি সাবস্ক্রাইবার যুক্ত হয়েছে। আর ভিডিও পোস্টকারীর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪ লাখ।

কিছু দিন আগেই হলিউডের অভিনেত্রী বেলা থর্ন এক দিনে এই ওয়েবসাইট থেকে ১০ লাখ ডলার উপার্জন করেন। এতো বেশি আয় দেখে সাইট কর্তৃপক্ষ নির্দিষ্ট সীমা বেঁধে দেয়। অর্থাৎ এক দিনে ওই পরিমাণের বেশি অর্থ উপার্জন করা যাবে না

এছাড়া পপ তারকা কার্ডি বি এই ওয়েবসাইটে ভিডিও পোস্ট করে মাসে প্রায় ৮০ লাখ ডলার আয় করেন। বিখ্যাত র‌্যাপ গায়ক তিগার আয় মাসে ৭০ লাখ ডলার। ১৮ বছর বয়সী মার্কিন র‌্যাপ শিল্পী ভাড ভাবি নাকি ছয় ঘণ্টাতেই এখান থেকে ১০ লাখ ডলার আয় করেছিলেন। যদিও মার্কিন র‍্যাপ গায়িকা রুবি রোজের মতে, তারা এখানে যা শেয়ার করেন, সেটা অ্যাডাল্ট কনটেন্ট নয়। তার ভাষ্য, ‘যারা ভাবেন এই ওয়েবসাইট শুধুমাত্র প্রাপ্তবয়স্ত ছবি বা ভিডিয়ো ভাগ করে নেওয়ার জায়গা, তারা ভুল ভাবছেন। এখানে আমরা ব্যক্তিগত স্তরে নানা বিষয়বস্তু ভাগ করে নিই ঠিকই, তবে সেগুলো প্রাপ্তবয়স্ক নয়।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here