এল‌ডি‌সি থে‌কে উত্তর‌ণে প্রয়োজন সম‌ন্বিত সহায়তা

0
5

বাংলারজয় প্রতিবেদক :

স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) ক্যাটাগরি থেকে উত্তরণের ক্ষেত্রে উন্নয়ন সহযোগী দেশ ও গ্রুপ এবং জাতিসংঘসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সংস্থার সমন্বিত সহায়তা পদক্ষেপ প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। বুধবার (২৬ মে) জাতিসংঘ সদর দফতরে চলমান এলডিসি-৫ প্রস্তুতিমূলক ভার্চুয়াল থিমেটিক আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, কোভিড-১৯ এর কারণে এলডিসি থেকে উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলো এজেন্ডা ২০৩০ বাস্তবায়নে ব্যাপক চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। এমন সংকটময় পরিস্থিতিতে দেশগুলোর বাণিজ্য, মেধাস্বত্ত্ব অধিকার ও বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ‘টেকসই উত্তরণ সহায়তা সুবিধাদি (এসজিএসএফ)’ এর মতো নতুন ও উন্নত সহায়তা কাঠামোর বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন।

বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, জাতিসংঘসহ ‘ইন্টার-এজেন্সি টাস্ক ফোর্স (আইএটিএফ)’ এসব দেশের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যুতসই ধারণা নিয়ে আসবে যা উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর টেকসই উত্তরণ নিশ্চিত করবে।

‘উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর জন্য উন্নত সহায়তা পদক্ষেপ’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে আয়োজন করে জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন, জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (ইউএন-সিডিপি) ও স্বল্পোন্নত দেশ, ভূ-বেষ্টিত উন্নয়নশীল দেশ এবং উন্নয়নশীল ক্ষুদ্র দ্বীপ রাষ্ট্রসমূহের জন্য নিযুক্ত জাতিসংঘের উচ্চ প্রতিনিধির কার্যালয়।

কাতারে ২০২২ সালে অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘের পঞ্চম এলডিসি সম্মেলনের সফলতা ঘরে তুলতে প্রস্তুতিমূলক কমিটির চলমান এই সভা তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন এলডিসি-৫ এর প্রস্তুতিমূলক সভার কো-চেয়ার রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। রাষ্ট্রদূত ফা‌তিমা ব‌লেন, প্রস্তুতি কমিটির এ সভাসমূহের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও উন্নয়ন অংশীদারগণ উত্তরিত ও উত্তরণের পথে থাকা দেশগুলোর জন্য কোভিড-১৯ চ্যালেঞ্জসহ উত্তরণের অন্যান্য চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় যথোপযুক্ত সহায়তা পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারবে।

আলোচনা অনুষ্ঠানটিতে অংশ নেন সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) পরিচালক তাফিরি টেসফাসিউ এবং ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য। ইভেন্টটিতে স্ব স্ব দেশের উত্তরণ পরবর্তী অভিজ্ঞতা ও চ্যালেঞ্জসমূহ তুলে ধরেন মালদ্বীপের জাতীয় পরিকল্পনা, গৃহায়ন ও অবকাঠামো বিষয়ক মন্ত্রী মোহাম্মদ আসলাম এবং ভানুয়াতুর প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মহাপরিচালক গ্রিগরি নিম্বটিক। উল্লেখ্য, গত ২৪ মে জাতিসংঘ সদর দফতরে শুরু হওয়া এলডিসি-৫ এর প্রস্তুতিমূলক সভা আগামী ২৮ মে শেষ হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here