টেস্ট মর্যাদা পেল নারী ক্রিকেট দল

0
1

বাংলারজয় প্রতিবেদক :

দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং দলের বিরুদ্ধে হোম সিরিজ খেলতে এখন সিলেটে অবস্থান করছেন বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা। গতকাল অনুশীলনের পর হোটেলে ফেরার আগেই খবরটা পেয়েছেন দলের সদস্যরা। বিকেলে মোবাইল ফোনের অপর প্রান্তে উচ্ছ্বসিত কণ্ঠ শোনা গেল তারকা ক্রিকেটার জাহানারা আলমের।

টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার খবরে নারী দলের সবাই আনন্দিত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও অভিনন্দনের জোয়ারে ভাসছে নারী দল। সম্প্রতি ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত বোর্ড সভায় পূর্ণ সদস্য দেশগুলোর নারী দলকে পাকাপাকিভাবে ওয়ানডে, টেস্ট স্ট্যাটাস দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আইসিসি। যার ফলে ২০১১ সালে ওয়ানডে মর্যাদা পাওয়া বাংলাদেশ নারী দল এবার টেস্ট আঙিনায় প্রবেশ করল। বাংলাদেশের সঙ্গে আফগানিস্তান, জিম্বাবুয়েও পেল টেস্ট স্ট্যাটাস। আইসিসির পূর্ণ ১২ সদস্যের বাইরে নেদারল্যান্ডসও এ তালিকায় রয়েছে।

টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ায় বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটেও এখন তিন ফরম্যাটের দল হবে। ক্রিকেটাররা বলছেন, এ স্বীকৃতির মাধ্যমে পূর্ণতা পেল দেশের নারী ক্রিকেট। যা দলকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে। বিশ্বের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির পূর্ণ সদস্য হওয়ার মধ্য দিয়ে ২০০০ সালে টেস্ট স্ট্যাটাস এসেছিল পুরুষ ক্রিকেটে। অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার ও টি-২০ দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন গতকাল প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ্?, টেস্ট ক্রিকেট খেলার মর্যাদা পেয়ে আমরা খুবই আনন্দিত। আশা করি, এটা আমাদের মেয়েদের ক্রিকেটকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

নারী ক্রিকেটার রুমানা আহমেদ বলেছেন, ‘নিঃসন্দেহে এটি আমাদের জন্য একটি ভালো খবর। এই টেস্ট স্ট্যাটাসের মাধ্যমে আমরা আমাদের নারী ক্রিকেট পূর্ণতা লাভ করেছে। সত্যি বলতে এখন নিজেদের টেস্ট খেলোয়াড় হিসেবে ভাবতে অন্যরকম অনুভূতি হচ্ছে। আমরা এই টেস্ট স্ট্যাটাসের মাধ্যমে আমাদের ক্রিকেটকে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের অধিনায়ক ও উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান নিগার সুলতানা জ্যোতি বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটের ঐতিহ্যবাহী ফরম্যাটে অন্তর্ভুক্ত হতে পেরে আমরা আনন্দিত ও গর্বিত। আশা করি অবশ্যই এটি বাংলাদেশ ক্রিকেটকে অনেক উচ্চতায় নিয়ে যাবে।’

 ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর অভিনন্দন

টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ায় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। গতকাল এক অভিনন্দন বার্তায় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়, কোচ, কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘মুজিব জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্যাপনের এ মাহেন্দ্রক্ষণে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়া বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত আনন্দের ও গর্বের। এটি আমাদের জন্য এক অসাধারণ অর্জন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here